বিএনপিকে ছাড়া গোল দেবেন, তা হবে না : গয়েশ্বর

রাজনীতি

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, বিএনপিকে আচমকা অপ্রস্তুত রেখে নির্বাচনে যাবেন। হঠাৎ করে গোল দেবেন, তা হবে না। আর বিএনপি তো সদা প্রস্তুত। জনগণ যাদের পক্ষে, তারা তো সদা প্রস্তুত। নির্বাচন দিন, নির্বাচন দিয়ে জনগণের ক্ষমতা জনগণকে দিতে হবে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত ‘গণতন্ত্র উত্তরণে অবাধ, সুষ্ঠু ও নির্দলীয় নিরপেক্ষ নির্বাচন দাবি এবং বর্তমান প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বিএনপির এই নেতা এসব কথা বলেন।

আলোচনা সভার আয়োজন করে বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবর্তক জাতীয় ঐক্য পরিষদ। সংগঠনটির সভাপতি সালাউদ্দিন খানের সভাপতিত্বে এতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ।

বিএনপির সিনিয়র এ নেতা বলেন, দেশে সবাই এখন হুকুমের দাস। সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার পদত্যাগের মাধ্যমে এটি প্রমাণ হয়েছে।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, আজকে বুঝতে হবে আদালত নিজস্বতা বলতে কিছু আছে কি না? সর্বশেষ এস কে সিনহার পদত্যাগের মাধ্যমে বিষয়টি এখন এমন হয়েছে যে, সবাই হুকুমের দাস, জজ সাহেবদের তেমন কিছু করার নেই, চাকরির ভয় পায়। তারা চাকরি রক্ষা করে সন্তান-সন্ততি নিয়ে ভালো থাকে আমাদেরকে জেলে দিয়ে। চাকরির ভয়, অন্যান্য ভয় তো রয়েছেই।

বিএনপি নেতা আরো বলেন, আজকের যে ঘটনা সেটা হলো বিভিন্ন সময়ে আদালতে হাজিরা দেওয়া, হাজিরা দিতে না পারা মানেই কিন্তু আদালতকে অবমাননা নয়। খালেদা জিয়া একজন পরিচিত লোক, অনুমতিও চাওয়া হয়েছে। যেদিন হরতাল থাকে, সেদিন কিন্তু অনেক বিচারকও আদালতে যেতে পারে না। যেহেতু দুপুর পর্যন্ত হরতাল, এ কারণে তিনি দুপুরের পরে যাবেন, দুটার পরে যদি তিনি না যেতেন তাহলে হয়তো বিষয়টা দেখা যেত।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, আজকে নির্বাচন কমিশন বলেছে, সরকার চাইলে আগাম নির্বাচন করতে পারে,তার মানে তারা সরকারের আজ্ঞাবহ। যদি কেউ বলে যে, ২০১৪ সালে নির্বাচনে বিএনপির না যাওয়াটা ভুল, তাহলে বলবে জনগণ ভুল করেছে, কারণ তারা ভোটকেন্দ্রে যায়নি। সেই ভোটকেন্দ্রে ৫ শতাংশ লোক যায়নি।

সরকার জোর করে নির্বাচন করতে চায় উল্লেখ করে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, বিএনপিকে আচমকা অপ্রস্তুত রেখে নির্বাচনে যাবেন। হঠাৎ করে গোল দেবেন। তা হবে না।আর বিএনপি তো সদা প্রস্তুত। জনগণ যাদের পক্ষে, তারা তো সদা প্রস্তুত। নির্বাচন দিন, নির্বাচন দিয়ে জনগণের ক্ষমতা জনগণকে দিতে হবে।

Leave a Reply