ন্যাপ ভাসানীকে বাদ দিয়ে কেউ ক্ষমতায় যেতে পারবে না : বঙ্গদ্বীপ এম.এ খান ভাসানী

সিলেট বিভাগ

উপমহাদেশের প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ মজলুম জননেতা মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর ৪১তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ ভাসানী)’র কেন্দ্রীয় সভাপতি বঙ্গদ্বীপ এম.এ খান ভাসানী বলেছেন, ক্ষমতায় না গিয়ে মওলানা ভাসানী দেশ ও জাতিকে সুসংগঠিত করে অনেক কিছু দিয়ে গেছেন। মেহনতী গণমানুষের সার্বিক মুক্তির লক্ষ্যে রাজপথ থেকে শুরু করে ভাষা আন্দোলন, ’৭১ এর স্বাধীনতা সংগ্রামে তিনি বঙ্গবন্ধুর রাজনীতিকে তরান্বিত করতে পেরেছিলেন।
তিনি ১৮ নভেম্বর শুক্রবার বিকেল ৪টায় নগরীর চৌহাট্টাস্থ সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে ন্যাপ ভাসানী সিলেট জেলা শাখা আয়োজিত আলোচনা সভায় জেলা কমিটির সভাপতি মোঃ আব্দুল আহাদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। সভায় তিনি বলেন, মওলানা ভাসানীর জন্ম ও মৃত্যু বার্ষিকীর মধ্যে দলের রাজনৈতিক কর্মকান্ড সীমাবদ্ধ রাখতে চান না। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে জাতিকে আবারো ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশবাসীর উন্নয়নে দলটি অংশিদার হতে চায়। তিনি বলেন, মওলানা ভাসানী ও বঙ্গবন্ধু একে অপরের পরিপূরক। এই দু’ নেতা ভাষা আন্দোলন থেকে স্বাধীনতা সংগ্রাম পর্যন্ত জাতির নেতৃত্বের সমন্বয়ক হিসেবে দেশের অগ্রযাত্রা এগিয়ে নিয়েছিলেন। এই অগ্রযাত্রায় স্বাধীনতা বিরোধীরা চক্রান্ত করছে। তাদের রুখে দিতে এই দু’ নেতার আদর্শকে আবরো সুসংগঠিত হয়ে কাজ করে যেতে হবে। কারণ তাদের অবদান দেশবাসী ভুলে যেতে পারে না। আর ন্যাপ ভাসানীকে বাদ দিয়ে আগামীতে কেউ ক্ষমতা যেতে পারবে না বলে হুশিয়ারী দেন। তিনি বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন গ্রহণযোগ্য করতে ইসিকে নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করতে হবে। আইনের সঠিক শাসন প্রতিষ্ঠায় সরকারকে আরো আন্তরিক হতে হবে।
আলোচনা সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন ন্যাপ ভাসানী’র সিলেট বিভাগীয় কমিটির সদস্য সচিব কামাল আহমদ। সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাহিত্য সম্পাদক এডভোকেট আকিক মিয়া, বিভাগীয় আহবায়ক ডা. এম.জি কিবরিয়া, সিলেট জেলা সহ সভাপতি মাওলানা ওলিউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শহীদুল হক নগরী, মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সহ সভাপতি মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম, জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক বদরুল ইসলাম, জাতীয় জনতা পার্টি সিলেট মহানগর শাখার সেক্রেটারী শফিকুর রহমান শফিক, ন্যাপ ভাসানী সিলেট জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক ইব্রাহিম আলী, সহ সাংগনিক সম্পাদক মাওলানা আব্দুল জলিল, জেলা নেতা ইতিয়াজ রহমান ইনু, জালালাবাদ থানা সভাপতি ফারুক আহমদ জালালী, গোয়াইনঘাট থানা সদস্য সচিব মানিকুর রহমান মানিক, গোলাপগঞ্জ থানা সহ সভাপতি জমির উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক সুক্তা আহমদ, সিলেট মহানগর মুক্তিযুদ্ধ সংসদ সন্তান কমান্ডের শ্রম ও জনশক্তি সম্পাদক আবু সাঈদ।
আলোচনা সভার পূর্বে শিশু-কিশোর শিক্ষার্থীদের নিয়ে এক চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে প্রধান অতিথি পুরস্কার বিতরণ করেন। শেষে মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর রূহের মাগফেরাত কামনা করে এক দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। বিজ্ঞপ্তি

Leave a Reply