সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাব’র সভাপতি মুহিত চৌধুরীর জন্মদিন আজ

সিলেট বিভাগ

২ নভেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবা ।। সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাব-এর সভাপতি, দৈনিকসিলেট ডটকম ও মাসিক বিশ্ববাংলার সম্পাদক কবি মুহিত চৌধুরীর আজ জন্মদিন। মুহিত চৌধুরী একাধারে কবি, গীতিকার, নাট্যকার, সাংবাদিক ও সফল সংগঠক। ১৯৬০ সালের ২রা নভেম্বর সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার চক্রবাণী গ্রামে তিনি জন্মগ্রহন করেন।

মুহিত চৌধুরী সিলেটে অনলাইন সাংবাদিকতার প্রতিকৃত। সিলেটে অনলাইন সাংবাদিকতাকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে মুহিত চৌধুরী অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তিনি ২০১৪ সালের ৮ জুলাই প্রতিষ্ঠা করেন ‘সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাব’ এবং ২০১১ সালের ১৮ নভেম্বর প্রতিষ্ঠা করেন বাংলাদেশের অনলাইন সাংবাদিকদের প্রথম সংগঠন ‘অনলাইন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন সিলেট(ওজাস)।

দশম শ্রেণীর ছাত্র থাকাকালে লেখেন গল্পের বই ’আঁখি ভরা জল’ এবং নাটক ’প্রতিশোধ নেব না’। আশির দশকে মুহিত চৌধুরী একজন শক্তিমান কবি হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন এসময় তাঁর লেখালেখির মাত্রা বেড়ে যায় । জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকায় নিয়মিত লেখা ছাপা হতে থাকে।

মুহিত চৌধুরী সাংবাদিকতা শুরু করেন আশির দশকে। নব্বই সালে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবাস জীবনকালীন সময়েও তিনি সাংবাদিকতার সাথে যুক্ত ছিলেন। ১৯৯৮ সালে তিনি বাংলাদেশে স্থায়ীভাবে চলে আসেন এবং মাসিক বিশ্ববাংলা সম্পাদনা শুরু করেন।
২০১১ সালে তাঁর সম্পাদনায় শুরু হয় জনপ্রিয় অনলাইন নিউজপোর্টাল ‘দৈনিকসিলেটডটকম’।

এপর্যন্ত কবি মুহিত চৌধুরীর দশ’টি বই বেরিয়েছে। এগুলো হচ্ছে প্রতিশোধ নেব না (নাটক), সানাই কথা বললো না (কবিতা), নির্লেজ্জর লজ্জা (কবিতা), আমেরিকায় বাংলা সাহিত্য ও সংস্কৃতি (গবেষণা), যদি ভালোবাসা মরে যায় (কবিতা), সহজ হজ্জ্ব গাইড(ধর্ম বিষয়ক), ফিরে আসা (উপন্যাস), কসম সিনাই পর্বতের (কবিতা), পাখি গেলে পোকার বাস (গীতি সংকলন)।
‘বাংলাদেশে অনলাইন সাংবাদিকতা’

কবি মুহিত চৌধুরী গীতি সংকলন প্রসঙ্গে বিশিষ্ট গবেষক প্রফেসর নন্দলাল শর্মা বলেছেন-’সিলেট হল গানের স্বপ্নরাজ্য। এই রাজ্যে এখনও বিচরন করছেন মরমী ফকির। সংসার বিবাগী না হয়েও অনেকে মরমী রাজ্যে বিচরণ করে আমাদের সংগীত জগতকে সমৃদ্ধ করেছেন। একুশ শতকে এসেও মরমী গানের ধারা সিলেটে সজীব ও প্রবাহমান। এ ধারার একজন উল্লেখযোগ্য গীতিকবি মুহিত চৌধুরী। কবি গীতিকার-ঔপন্যাসিক-নাট্যকার-গবেষক ও সম্পাদক নানা পরিচয় তার। দীর্ঘকাল ধরে তিনি গান লিখেছেন। মরমীগান, পল্ল্লীগীতি আধুনিক প্রভৃতি বিচিত্র ধরনের গান তিনি সমান দক্ষতায় লেখেন। বাংলাদেশ বেতারের তিনি একজন প্রসিদ্ধ গীতিকার ও নাট্যকার। ১৯৯৫ সালে একটি মানবতাবাদী কবিতা লিখে যুক্তরাষ্ট্রের ’দ্যা ন্যাশনাল লাইব্রেরী অব পোয়েট্রি’ থেকে তিনি এডিটর চয়েজ এওয়ার্ড পান। কবির পরিচিতসহ কবিতাটি ন্যাশনাল লাইব্রেরী তাদের ’স্পার্কলেস ইন দ্যা সেন্ড’ নামক বিশাল কাব্যসংকলনে প্রকাশ করে।

Leave a Reply