খালেদা জিয়া পণ্যের ব্রান্ড অ্যাম্বাসেডরদের মতো পোজ দিয়েছেন : হাছান

রাজনীতি

বিদেশি নায়ক-নায়িকারা যেভাবে পণ্যের ব্রান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে বিজ্ঞাপনে পোজ দেয় বিএনপির নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া রোহিঙ্গা শিশুকে কোলে নিয়ে একই রকম ভাবে পোজ দিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

মঙ্গলবার বেলা ১২টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সমানে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে ‘রোহিঙ্গাদের সহায়তার নামে জনদুর্ভোগ সৃষ্টিকারী খালেদা জিয়ার মিথ্যাচারের প্রতিবাদে’ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের এই মুখপাত্র বলেন, ‘খালেদা জিয়া কক্সবাজার যাওয়ার পথে নারীরা হলুদ শাড়ি পরে ফুলের পাপড়ি ছিটিয়ে, হাতি নিয়ে, বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে স্বাগত জানিয়েছে। তিনি যেন কোন বিয়ের গায়ে হলুদে গিয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গিয়েছেন। সেখানে গিয়ে তিনি আবেগ-আপ্লুত হয়ে গিয়েছিলেন। রোহিঙ্গাদের দুঃখ দেখে কান্না করেছেন। কিন্তু বিএনপি নেত্রী হাসি মুখে রোহিঙ্গা শিশুকে কোলে নিয়ে পোজ দিয়েছেন। তার পেছনে থাকা নারী নেত্রীরাও হেসেছেন। তিনিও হেসেছেন। যেমনটা করে থাকে বিদেশি নায়ক-নায়িকারা কোন পণ্যের ব্রান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে। তার (খালেদা জিয়া) মধ্যে কোন আবেগ নাই, মানবতা নাই।’

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আপনি (খালেদা জিয়া) ছোট বেলায় নাকি নাটক করতে চেয়েছিলেন, করতে পারেনি। কিন্তু গতকাল ঠিক ভাল একটা নাটক করেছেন।’

সরকারের সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘খালেদা জিয়া সেখানে গিয়ে বলেছেন যেসব রোহিঙ্গারা কাজ করতে চায় আমরা নাকি তাদের কাজ করতে দিচ্ছি না। খালেদা জিয়া চান রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের মানুষের সাথে মিশে যাক। তিনি সেখানে গিয়ে উস্কানি দিয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘সরকারের সকল সুযোগ-সুবিধা নিয়ে সেখানে গিয়েছেন খালেদা জিয়া। আর সেখানে গিয়ে বলছেন সরকার নাকি রোহিঙ্গাদের জন্য কিছুই করে নাই। তাহলে রোহিঙ্গাদের কে খাওয়াচ্ছে? কে এতো ঘর বানিয়ে দিয়েছে? যার জন্মতারিখ, সব কিছুতে মিথ্যা তারা আর কি বলতে পারে?’

সংগঠনের সহ-সভাপতি চিত্রনায়ক ড্যানি সিডাক সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক বাবু সুজিত রায় নন্দীসহ আয়োজক সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply