মারা গেছেন অভিনেতা রাতিন

বিনোদন

মঞ্চ, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রের গুণী অভিনেতা আবদুর রাতিন মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। পরে লিভার ও কিডনিজনিত রোগে ভুগেন। অবশেষে গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত আড়াইটায় না ফেরার দেশে চলে যান তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৬ বছর।

বাদ জোহর নারিন্দার বিনোদ বিবি মসজিদে জানাজা শেষে স্বামীবাগে পারিবারিক কবরস্থানে রাতিনকে দাফন করা হবে বলে জানিয়েছেন তার ভাই অঞ্জন রহমান।

অঞ্জন রহমান জানান, রাতিন কিছু দিন পুরান ঢাকার ন্যাশনাল মেডিক্যাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। পরে তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে কেবিন ব্লকে ২১৬ নম্বর কেবিনে কিছু দিন প্রায় অচেতন অবস্থায় ছিলেন।

তিনি আরো জানান, তার ভাই প্রথমে চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। পরে লিভার ও কিডনিজনিত রোগে ভুগেন। মঙ্গলবার দিবাগত রাত আড়াইটায় শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

উল্লেখ্য, শতাধিক মঞ্চ নাটকে অভিনয় করেছেন অভিনেতা রাতিন। ১৯৭২ সাল থেকে এ পর্যন্ত দুই শতাধিক টেলিভিশন নাটকে তাকে দেখা গেছে। রাতিন অভিনীত উল্লেখযোগ্য টেলিভিশন নাটক হলো রত্মদ্বীপ, মহুয়ার মন, অভিনেতা, বোবাকাহিনী, গৃহবাসী প্রভৃতি। এ ছাড়াও সিনেমা করেছেন এই অভিনেতা। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য সিনেমা হলো হারানো সুর, দেবদাস, শুকতারা, জবাব চাই, স্নেহের প্রতিদান, লালু সর্দার প্রভৃতি।

Leave a Reply